মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০৯:৫৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নান্দাইলে ব্যাক্তি অর্থায়নে হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে ঈদ উপহার ॥ নওগাঁর আত্রাইয়ে প্রয়াত এমপি ইসরাফিল আলমের স্ত্রী কর্তৃক  সাংবাদিকদের ঈদ উপহার বিতরণ আওয়ামীলীগ নেতা শাহজাহান কবির সুমন নান্দাইল চৌরাস্তায় পথচারীদের ঈদ উপহার বিতরন ঈদুল ফিতর কবে জানা যাবে কাল প্রায় ৮ বছর আগে করোনাভাইরাস নিয়ে টুইট! করোনার টিকা আনতে চীনে বিমানবাহিনীর উড়োজাহাজ গেছে মাহাদেবপুরে বিএসডিও’র নির্বাহী পরিচালকের নির্দেশে মন্দির চত্বরে গরু জবাই : দায়ভার চাপিয়ে দিয়ে অধঃস্তন কর্মচারীকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করোনা  উপেক্ষা করে চরফ্যাশনে জমে উঠেছে ঈদবাজার।  মেট্রোরেল প্রথমবারের মতো চলল মাওলানা আফতাব উদ্দিন ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের উদ্যোগে ইসলামিক বই বিতরণ ॥

কিশোরগঞ্জ পাগলা মসজিদের দানবাক্সে জমা পড়ল রেকর্ড পরিমাণ টাকা

জিএসএন নিউজ ২৪ ডেস্ক..
  • Update Time : শনিবার, ২৩ জানুয়ারি, ২০২১
  • ৩২৪ Time View
পাগলা মসজিদের দানবক্সে পড়া টাকা গণনায় মসজিদ ও মাদ্রাসার ৬০ জন ছাত্র-শিক্ষক ছাড়াও রূপালী ব্যাংকের কর্মকর্তারা অংশ নেন।

কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক পাগলা মসজিদের দানসিন্দুক থেকে রেকর্ড পরিমাণ ২ কোটি ৩৮ লাখ ৫৫ হাজার ৫৪৫ টাকা পাওয়া গেছে। পাঁচ মাস পর সিন্দুক খুলে আজ শনিবার এ বিপুল পরিমাণ টাকার পাশাপাশি বিভিন্ন বৈদেশিক মুদ্রা ও বেশ কিছু স্বর্ণালংকারও মিলেছে।

এর আগে সর্বশেষ গত বছরের ২২ আগস্ট দানসিন্দুক খোলা হয়েছিল। তখন ১ কোটি ৭৪ লাখ ৮৩ হাজার ৭১ টাকা পাওয়া গিয়েছিল। এর আগে গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে দানবাক্স খুলে ১ কোটি ৫০ লাখ ১৮ হাজার ৪৯৮ টাকা পাওয়া যায়।

কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের নরসুন্দা নদীর তীরে পাগলা মসজিদের অবস্থান। প্রতিদিনই অসংখ্য মানুষ মসজিদটির দানসিন্দুকগুলোতে নগদ টাকা-পয়সা, স্বর্ণালংকার ছাড়াও গবাদিপশু, হাঁস-মুরগিসহ বিভিন্ন ধরনের জিনিসপত্র দান করেন। কথিত আছে, এই মসজিদে দান করলে মনোবাসনা পূর্ণ হয়। সে জন্য দূরদূরান্ত থেকে ধর্মমত নির্বিশেষে অসংখ্য মানুষ এখানে দান করে থাকেন। এবার করোনার জন্য কিছুদিন মসজিদ বন্ধ থাকলেও দান–খয়রাত অব্যাহত থাকে।

দেশের অন্যতম আয়কারী ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান হিসেবে স্বীকৃত মসজিদটিকে পাগলা মসজিদ ইসলামী কমপ্লেক্স নামকরণ করা হয়েছে। এ মসজিদের আয় দিয়ে কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। এ ছাড়া মসজিদের আয় থেকে বিভিন্ন সেবামূলক খাতসহ জটিল রোগীদের চিকিৎসায় এর অর্থ ব্যয় করা হয়। গত আগস্টে পাওয়া দানের টাকা থেকে করোনা রোগীদের চিকিৎসার জন্য সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা সরঞ্জামাদি কিনে দেওয়া হয়।

কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. আব্দুল্লাহ আল মাসউদ বলেন, শনিবার সকাল ১০টায় মসজিদের ৮টি দান সিন্দুক খোলা হয়। সিন্দুক থেকে কয়েকটি বস্তায় টাকা ভরা হয়। এরপর মেঝেতে রেখে শুরু হয় দিনব্যাপী টাকা গণনা। টাকা গণনায় মসজিদ ও মাদ্রাসার ৬০ জন ছাত্র–শিক্ষক ছাড়াও রূপালী ব্যাংকের কর্মকর্তারা অংশ নেন।

গণনার পর সাজিয়ে রাখা হয়েছে দানবাক্সে পাওয়া টাকা

গণনার পর সাজিয়ে রাখা হয়েছে দানবাক্সে পাওয়া টাকা

আব্দুল্লাহ আল মাসউদ বলেন, এবার গণনা শেষে যে ২ কোটি ৩৮ লাখ ৫৫ হাজার ৫৪৫ টাকা পাওয়া গেছে, তা রূপালী ব্যাংকে জমা করা হয়েছে। এ ছাড়া বিভিন্ন দেশের মুদ্রাসহ বেশ কিছু স্বর্ণালংকার পাগলা মসজিদের দানবাক্সে জমা পড়েছে। এখানে ১০০ কোটির অধিক টাকা দিয়ে বড় আকারের একটি পাগলা মসজিদ ইসলামি কমপ্লেক্স নির্মাণের পরিকল্পনা চলছে বলে তিনি জানিয়েছেন।
এর আগে কখনো তিন মাস, কখনো পাঁচ মাস পরপর সিন্দুক খোলা হতো। দানসিন্দুক খুলে একসঙ্গে এত টাকা এর আগে কখনো পাওয়া যায়নি বলে জানান আব্দুল্লাহ আল মাসউদ।

টাকা গণনার কাজে সার্বক্ষণিক তদারকি করেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মাসউদ। এ সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শফিকুল ইসলাম, মো. উবায়দুর রহমান, মো. জুলহাস হোসেন ও মো. ইব্রাহীম, পাগলা মসজিদের পেশ ইমাম মুফতি খলিলুর রহমানসহ কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

Total Page Visits: 461 - Today Page Visits: 1

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: রায়তা-হোস্ট
raytahost-gsnnews