নান্দাইলে পূর্বকান্দা বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ॥ বার্ষিক পরীক্ষায় কোন ছাত্র-ছাত্রী নেই

ময়মনসিংহ সারাদেশ

এবি সিদ্দিক খসরু/ শাহজাহান ফকির : ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার ৫নং গাংগাইল ইউনিয়নের পূর্বকান্দা গ্রামে স্থাপিত পূর্বকান্দা বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বার্ষিক পরীক্ষায় প্রথম শ্রেণী থেকে চতুর্থ শ্রেণী পর্যন্ত কোন ছাত্র-ছাত্রী পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে নাই। রোববার ৮ই ডিসেম্বর নান্দাইলে কর্মরত একদল মিডিয়াকর্মী সরজমিনে বিদ্যালয়টি পরিদর্শন করে দেখতে পান। কাগজে কলমে অত্র বিদ্যালয়ে ৫জন শিক্ষক কর্মরত আছেন বলে জানাযায়।

কিন্তু রোববার কোন শিক্ষক বিদ্যালয়ে ছিলনা এবং বিদ্যালয়টি একটি দুচালা টিনের ঘর ছাড়া কোন ব্যাঞ্চ, চেয়ার-টেবিল কিছুই নেই। বিদ্যালয়ের জমিদাতা আবুল কালাম আজাদ জানান, শাইলধরা গ্রামের মঈন উদ্দিন সুমন নামে এক ব্যক্তি বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক হিসাবে সরকারী রেজিস্ট্রেশনের ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলে ৫ জন শিক্ষক নিয়োগ দিয়েছেন। তারা হচ্ছে কণা, পারভীন, নাহার ও তার স্ত্রী। ২০১৯ প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় ৫ম শ্রেণীতে ৫ জন ভূয়া ছাত্র-ছাত্রী পরীক্ষায় অংশ গ্রহনের সময় নান্দাইল উপজেলা নির্বাহী অফিসার গোপন সূত্রে খবরপেয়ে ঐ ৫ জন ছাত্র-ছাত্রীকে সমাপনী পরীক্ষা থেকে বহিষ্কার করেন এবং বিদ্যালয়টিকে কালো তালিকাভূক্ত করার জন্য নান্দাইল উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে নির্দেশ প্রদান করেন।

জানাযায়, এই কাস্টারের সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার তাসলিমা বেগম লিপি বিদ্যালয় কোন রকম পরিদর্শন না করেই অজ্ঞাত কারনে ৫ জন ছাত্র-ছাত্রীকে পিইসি পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ করে দেন। বিদ্যালয়ের কথিত প্রধান শিক্ষক মাঈন উদ্দিন সুমন জানান, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে কাগজ পত্র ঠিক থাকলে বিদ্যালয় গেজেটভূক্ত করা কোন বিষয় না। নান্দাইলে এ ধরনের আরো প্রতিষ্ঠান গেজেটভূক্ত হয়েছে। উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী জানান, এই বিদ্যালয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। কোন ভূয়া প্রতিষ্ঠান গেজেটভূক্ত হওয়ায় সুযোগ দেওয়া হবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *