সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৪:৫৩ পূর্বাহ্ন

কেন্দুয়ায় চন্দগাতি ও বাট্টা গ্রামে পৃথক দুটি সংঘর্ষে আট নারী সহ আহত ৫০

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ২৯ নভেম্বর, ২০১৯
  • ১৯১ Time View

সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা, কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি : নেত্রকোণার কেন্দুয়া উপজেলার পৌর এলাকায় চন্দগাতি ও চিরাং ইউনিয়নের বাট্টা মধ্যপাড়া গ্রামে পৃথক দুটি সংঘর্ষে আট নারী সহ অন্তত ৫০ জন আহত হয়েছে। দুটি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে শুক্রবার সকাল ও দুপুরে। সংঘর্ষে আহতদের প্রথমে কেন্দুয়া উপজেলা হাসপাতালে নেয়া হলে আশংকজনক অবস্থায় চন্দগাতি মহল্লার পারভিন আক্তার(৩০) জাহাঙ্গির হোসেন (২৮) খালেক (৩৫) আলেছা (৬০) এবং বাট্টা গ্রামের মঞ্জিল (৪০) মামুন (৩৫) হান্নান (৪০) মোবারক (১৪) পুষ্প (৩৫) রোকন উদ্দিন বুরুজ (৫০) ও মালেক মিয়াকে (৪৪) ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষ দর্শীরা জানান, বাট্টা গ্রামের রোকন উদ্দিন বুরুজ মিয়া আহত রোগীদের নিয়ে হাসপাতালে এলে চন্দগাতি গ্রামের নাইম নামের এক যুবক ধাঁরালো অস্ত্র দিয়ে রোকন মিয়ার পেটে আঘাত করলে তিনি গুরুতর আহত হন। এ ঘটনায় হাসপাতালে ভর্তি আহত রোগীদের মাঝে আতংক ছড়িয়ে পরে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি সামলে দেয়।

এলাকাবাসী জানায়, পূর্বশত্রুতার জের ধরে চন্দগাতি গ্রামের মুখলেছ মিয়ার ছেলে শহিদ ও মালেক মিয়ার ছেলে আয়নালের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। শুক্রবার সকাল ৮ টার দিকে ২ পক্ষের লোকদের সংঘর্ষে পারভীন আক্তার, জাহাঙ্গীর হোসেন, খালেক, আলেছা, কাঞ্চন, কলি ইসলাম, আম্বিয়া, হেলেনা, শহিদুজ্জামান ও আইরিন সহ আরো বেশ কয়েকজন আহত হয়। এছাড়া চিরাং ইউনিয়নের বাট্টা মধ্যপাড়া গ্রামে বেলা দেড়টার দিকে বিদ্যুতের সংযোগ দেয়া নেয়াকে কেন্দ্র করে ওই গ্রামের এনামুল হক বাচ্চু ও আব্দুস সুবহান মাতাব্বরের লোকদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বাঁধে।

সংঘর্ষে মঞ্জিল, মামুন, কাইয়ুম, জেনিস, হেলাল, সালমা, মোবারক, রাতুল, পুষ্প ও মালেক সহ আরো কয়েকজন আহত হয়। হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসকরা জানান, আহতদের মধ্যে আশংকা জনক অবস্থায় কয়েকজনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। কেন্দুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামান জানান, দুটি সংঘর্ষের ঘটনায় নারী সহ বেশ কয়েকজন আহত হয়। এদের মধ্যে আশংকা জনক অবস্থায় কয়েকজনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি।

Print Friendly, PDF & Email
Spread the love
  •  
  •  
  •  

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: রায়তা-হোস্ট
raytahost-gsnnews