বিশ্বের শীর্ষ দুই স্যামসাং অ্যাপলের ফোন ব্যবহারে ক্যান্সারের ঝুঁকি, আদালতে মামলা

তথ্য ও প্রযুক্তি

জিএসএন ডেস্ক: বিশ্বের শীর্ষ দুই মোবাইল ফোন জায়ান্ট কোম্পানি স্যামসাং এবং অ্যাপলের কিছু ফোন থেকে অতিরিক্ত মাত্রায় রেডিয়েশন নির্গত হওয়ায় ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ছে। নির্ধারিত হারের চেয়ে বেশি মাত্রায় ক্ষতিকর রেডিয়েশন নির্গত হওয়ায় ক্যান্সারসহ বেশকিছু স্বাস্থ্য সমস্যা তৈরি হচ্ছে।

এমন অভিযোগ এনে দক্ষিণ কোরীয় ও মার্কিন এ দুই কোম্পানির বিরুদ্ধে আদালতে মামলা হয়েছে। গত মঙ্গলবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সানফ্রান্সিসকো শহরের ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে এ মামলা করেন স্যামসাং এবং অ্যাপলের ১৬ জন স্মার্টফোন ব্যবহারকারী।

ফোন থেকে অতিরিক্ত মাত্রায় রেডিয়েশন নির্গত হওয়ার খবরে বিশ্বজুড়ে স্যামসাং এবং অ্যাপলের কোটি কোটি স্মার্টফোন ব্যবহারকারী উদ্বিগ্ন।

সানফ্রান্সিসকোর নর্দান ডিস্ট্রিক্ট অব ক্যালিফোর্নিয়ার আদালতে দায়েরকৃত মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, কর্তৃপক্ষের নির্ধারিত মাত্রার চেয়ে অতিরিক্ত পরিমাণে ক্ষতিকর রেডিয়েশন নির্গত করছে অ্যাপল এবং স্যামসাংয়ের স্মার্টফোন। ব্যবহারকারীরা এ মাত্রা সম্পর্কে জানলে তারা এ দুই কোম্পানির ফোন ব্যবহার করতেন না।

মামলায় অভিযোগকারীদের আইনজীবী শিকাগোর ফেগান স্কট, আইওয়ার অ্যান্ডারসন, গোপলিরাড. উইসি, ওয়েস্ট ডেস মোইনেস বলেন, অ্যাপল এবং স্যামসাং গ্রাহকদের স্বাস্থ্য অত্যন্ত ঝুঁকিতে ফেলছে। কোম্পানি দুটির ফোন থেকে উচ্চমাত্রার রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি রেডিয়েশন নির্গত হচ্ছে।

মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, বৈদ্যুতিক তরঙ্গ স্থানান্তরের মাধ্যমে অতিরিক্ত রেডিয়েশন নির্গমন করছে স্যামসাং এবং অ্যাপলের স্মার্টফোন। ফলে ফোন ব্যবহারকারীদের মাঝে ক্যান্সারের ঝুঁকি বেড়ে যেতে পারে। এছাড়া কোষে অতিরিক্ত চাপ তৈরি এবং প্রজনন স্বাস্থ্যের ক্ষতি করতে পারে।

অভিযোগে আরো বলা হয়েছে, ফোন ব্যবহারকারীরা বলছেন, কোনো কোনো ক্ষেত্রে স্যামসাং এবং অ্যাপলের ফোন শরীরের কাছে রাখলে রেডিয়েশনের মাত্রা ৫০০ গুণ বেশি নির্গত হয়। আইফোন-৮, আইফোন এক্স ও গ্যালাক্সি এস৮ থেকে নির্ধারিত মাত্রার চেয়ে বেশি রেডিয়েশন নির্গত হচ্ছে বলে মামলার অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।

এর আগে ২০১৭ সালের জুলাইয়ের এক গবেষণায় বলা হয়, স্মার্টফোন থেকে ক্ষতিকর রেডিয়েশন নির্গতের শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে বিশ্বের শীর্ষ তিন মোবাইল ফোন নির্মাতা কোম্পানি। যেসব কোম্পানির তৈরি স্মার্টফোন থেকে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিকর রেডিয়েশন নির্গত হয় তার মধ্যে দক্ষিণ কোরিয়ার শীর্ষ মোবাইল ফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্যামসাং।

আধুনিক প্রযুক্তি সামগ্রীর ব্যবহারের কারণে মানুষের স্বাস্থ্যঝুঁকি বাড়ছে। তবে নিত্যনতুন প্রযুক্তি সামগ্রীর পাশাপাশি মোবাইল ফোন থেকে নির্গত রেডিয়েশন বা তেজস্ক্রিয়তা মানুষের শরীরের মেটাবলিক ভারসাম্যে ব্যাঘাত ঘটাচ্ছে।

গবেষকরা বলছেন, স্মার্টফোন, ট্যাবলেট, ল্যাপটপ, ডেস্কটপ থেকে নির্গত হাই ফ্রিকোয়েন্সির ইলেকট্রো-ম্যাগনেটিক রেডিয়েশনের কারণে মানুষের দৃষ্টিশক্তি হারানোর শঙ্কা রয়েছে। এছাড়া ক্যান্সারসহ বিভিন্ন ধরনের স্বাস্থ্যঝুঁকি বাড়ছে এসব প্রযুক্তি ব্যবহারের কারণে।

গবেষণায় বলা হয়, যেসব মোবাইল ফোন থেকে সবচেয়ে বেশি রেডিয়েশন নির্গত হয়; সেসব ফোনের তালিকায় সর্বোচ্চ রেডিয়েশন নির্গতে তৃতীয় অবস্থানে আছে দক্ষিণ কোরিয়ার শীর্ষ মোবাইল ফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্যামসাংয়ের গ্যালাক্সি এস-৮

এরপর ক্ষতিকর রেডিয়েশন নির্গতে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে চীনা স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের স্মার্টফোন। এছাড়া সবচেয়ে বেশি ক্ষতিকর রেডিয়েশন নির্গত হয় মার্কিন বহুজাতিক প্রযুক্তি জায়ান্ট কোম্পানি অ্যাপলের নির্মিত আইফোন-৭ থেকে।

87total visits,2visits today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *